এই পোস্টটি ৪৬৭ বার পড়া হয়েছে


উপাই নাইক্কা, ভ্রার্তৃঘাত সংঘাত বন্ধ করবার লাইগা জোড় দাবি তুলতে অইবো!

মুই রিপরিপ চাকমা গ্রাম্য অশিক্ষিত গরীব মানুজ! ট্যাকা পয়সার সমস্যার লাইগা লেহাপড়া বেশি শিখতে পারি নাই। অল্প ঘষামাজা করি কোন রকমে কয়েকদা লেহা আর নিজের নামদা লিখতে পারি। কি আর করুম কপালেরই দোষ আছিলো। যাক সে দুখের কথা, সেই দুঃখের চেয়ে বর্তমান দুঃখটাই বেশি। অনেক বছর ধরি খালিই হুনতাছি, যে জুম্ম বিপ্লবী ভাইয়েরা কজ্জ্যে কইরতে কইরতে একদল আর একদলরে শবাশালে তুলি দিতাছে, আর কয়েকদার বুকে ঘাস খেড় উদি যাইতাছে। মেধাবী অনিমেষ রুপক সহ আজ পর্যন্ত অনেক তাজা প্রান শেষ অইয়া গেলো। ইস! বড়ই খারাপ লাগদাছে, এ কি দিন শুরু অইলো মেধাবী মানুষ গুলা তো অপরিনত বয়সে মরি যাইতাছে। কত মায়ের কোল যে খালি অইলো, কত বাপ তার পলা আরাইলো, কত সন্তান তার পিতা আরাইলো, কত মায়া বিধবা অইলো, সত্যিই খুব দুঃখ অয়। আগেই কইছি মুই অশিক্ষিত গরীব মানুষ , একবেলা ভাত পরের এহানে খাইয়া বাচাইতে পারলে মোর লাভ। না বুইজা এই সুত্র ধইরা আগে সাতদিন্যি গেরামে অইলে খুবিই খুশি অইতাম। কিন্তু বুজার পরে সাতদিন্যি খাইতে গিয়া মনে পুড়ি যাই যার সাতদিন্যি খাইতে যাইতাছি সেই ভাইদারে, আহারে লোকডা কত ভালা আছিলো, তাজা মেধাভী এক্কান প্রান গেলো, কান্নার লগে পেটের ক্ষুধা যাইতো গা। কান্নার লগে দুঃখে বুক ফাটি যাইতো গা, খাই দাই আর কাম পাইলো না, মারবার মানুষ আর দেখলো না। এরকম কষ্ট পাইতে পাইতে মনডা পাত্তর অইয়া গেছে, যে গেছে গেছে, কান্না কইরা তারে ত আর ফিরা পামুনা। তবু দুঃখ লাগথো আহারে এই মেদাবী মানুশ গুলা আসলে আমাগো জাতের লাইগা অপুরনীয় ক্ষতি। জাতদা বোদ হয় অশিক্ষিত অই রইয়া গেলো। মাজখানে বদ্ধ খুশি অইছি যে ইউপিডিএফ আর জেএসএসএমএন নাকি বুজাপারায় আয়ছে! এবার বোধ হয় একটু শান্তি আইবো। কিন্তু আর একদা যে বাদ পড়ি গেছে জানতাম না সেইদা অইলোগ্যা জেএসএস সন্তু । পরেই জানলুম। হুনলাম সে নাকি বুজাপাড়াই যাইতে চাইনা, জেএসএস এম এন ইউপিডিএফ এর উপর তার যে ক্ষোভ রইয়া গেছে রাগ না জুরাইয়া বলে ছারবো না। এর লাইগায় শেষ দিতে অইলো কয়েক দিন আগে তাজা ৪গান প্রান মেধাবী সুদীর্ঘ চাকমাসহ তার তিন সহকর্মী। খুবিই খারাপ লাগছিলো যখন খবরটা পাইছি, আরো বেশি খারাপ লাগছিল তার ৭,৮ বছরে নিসপাপ পলা চুনচুনরে দেইখা। ইস পলাডা এই বয়সেই বাপদারে আরাইলো। আমি না হই অশিক্ষিত রইয়া গেলুম, এই রকম অইলে তো জাত তা পুরাই যাইবো গা। কইদিন আর চলবো এই যুদ্ধ? আর কত দুঃখ সহ্য করুম? কত ভাইকে অপরিনত বয়সে শবাশালে যাইতে অইবো? কই আসিস তোরা সচেতন মানুষ, আহেন অন্তত তোর মোর স্বার্থকে ভুইলা গিয়া জাতির বৃহত্তর সার্থে ভ্রাতৃসংঘাত বন্ধের জোড় দাবি তুলে জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলি। আহেন বাপ ভাই মা বোন লক আহেন যোগ দেন আগামী কর্মসুচিতে যে কর্মসুচীতে স্লোগান উথবে, আর চায়না ভ্রাতৃঘাত সংঘাত, এক দফা এক দাবি ঐক্য চাই ঐক্য চায়। ভ্রাতৃহত্যা নিপাত যাক জুম্ম জাতি মুক্তি পাক।

বিঃদ্র- মুই অশিক্ষিত মানুষ তবু মোর ঘুম ভাঙছে, অহন অন্যর ঘুম ভাঙাইতে অইবো। আর ঘুমায়েন না, পুরা জাত দা বুরুজ উঠমু।

Advertisement