আসামের গেরিলা সংগঠন উলফার প্রতিষ্ঠাদিবস ৭ এপ্রিল

  আজ ৭ এপ্রিল, ২০১৫। ১৯৭৯ সালের এই দিনে আসামের শিবসাগরের রঙঘর নামে এক এলাকায় আসামের স্বাধীনতাপন্থী কয়েকজন যুবনেতা ইউনাইটেড লিবারেশন ফ্রন্ট অব আসাম বা উলফা গঠন করেন। ভীমকান্ত বোরগোহাইন, পরেশ বড়ুয়া/বোড়া, রাজীব রাজকোনওয়ার প্রকাশ অরবিন্দ রাজখোয়া. অনুপ চেটিয়া প্রকাশ গোলাপ বড়ুয়া/বোড়া, প্রদীপ গোগোই, প্রকাশ সমীরণ গোগোই, ভদ্রেশ্বর গোহাইন , মিথিঙ্গা দাইমারী, চিত্রবন হাজারিকা, শশধর চৌধুরী প্রমুখ এই সংগঠনের নেতৃত্ব পর্যায়ে রয়েছেন।  আসামের স্বাধীনতার ডাক দিয়ে এই সংগঠেনর জন্ম হয়েছিল। ভারত থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে একটি স্বাধীন সার্বভৌম সমাজতান্ত্রিক আসাম গঠন ছিল তাদের মূলমন্ত্র। উলফা ... বিস্তারিত পড়ুন →

লি কুয়ান ইয়ু- দায়বোধ সম্পন্ন, কর্তৃত্ববাদী স্বপ্নছোঁয়া একজন

 সিঙ্গাপুর নামে এক ছোট দ্বীপখন্ড বেশ কয়েক দশক আগেও এই দ্বীপখন্ড ছিলো জেলেদের মাছ ধরার এক জনপদ। ১৮১৯ সালে ব্রিটিশরাজ এই অঞ্চলকে ব্যবসায়িক কলোনী হিসেবে ব্যবহারের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। আয়তন ৭১৬ বর্গকিলোমিটারের(২৭৭ বর্গমাইল) কিছু বেশি। জনসংখ্যা বর্তমানে প্রায় ৫৫ লাখের মতো।জনপদে বসবাস করছেন মালয়ী-তামিল-চীনা এই তিন জাতির জনগণ। তবে প্রাপ্ত এক ডাটায় দেখা যায় সিঙ্গাপুরের মোট শ্রমশক্তির ৪৪ ভাগই বর্তমানে অন্য দেশ বা জাতি থেকে আগত। ১৯৪২ সালের দিকে জাপান এই অঞ্চল ব্রিটিশরাজ থেকে দখলে নেয়। ১৯৪৫ সালে জাপানের কাছ থেকে আবার তা ব্রিটিশদের হাতে চলে আসে। ১৯৫৫ সালে সিঙ্গাপুরকে ... বিস্তারিত পড়ুন →

১৫ মার্চের দীঘিনালা ভূমি রক্ষা কমিটির পদযাত্রায় হামলা ও তার পরবর্তি অবস্থা

গত ১৫ মার্চ দীঘিনালা ভূমিরক্ষা কমিটির আহ্বানে দীঘিনালা সদর থেকে বাবুছড়া পর্যন্ত পদযাত্রা বা লংমার্চের কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। বাবুছড়ায় দুইটি গ্রামের মোট ২১ পরিবারকে উচ্ছেদ করে বিজিবি’র ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তর স্থাপনের প্রতিবাদে এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। কর্মসূচির দিন সকাল থেকে প্রশাসন গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দিয়ে ও ভিতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করে কর্মসূচি ব্যর্থ করে দিতে চেষ্টা করে। কিন্তু বহু বছর পরে দীঘিনালার জনতা গণতান্ত্রিক এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহণের জন্য যেন পথে পথে উন্মুখ ছিল! তাই যেখানেই পদযাত্রায় বাধা দেয়া হয়েছে সেখানেই তার পরবর্তী স্থান থেকে নতুন করে পদযাত্রা ... বিস্তারিত পড়ুন →

দীঘিনালায় সারাদিন

দীঘিনালা ভুমিরক্ষা কমিটির ব্যানারে আজ লংমার্চ-এর ডাক দেয়া হয়েছে। দীঘিনালা উপজেলা মাঠ থেকে বাবুছড়া পর্যন্ত লংমার্চের গন্তব্যস্থল ছিলো। বিজিবি কর্তৃক ২১ জুম্ম পরিবারকে উচ্ছেদ করে ৫১ ব্যাটালিয়ন সদরদপ্তর স্থাপনের প্রতিবাদে এই লংমার্চের ডাক দেয়া হয়। লংমার্চ শান্তিপূর্ণভাবে করা হবে বলে ঘোষনা দেয়া হয়। কিন্ত আজ ১৫ মার্চ সকাল থেকেই দীঘিনালায় বিরাজ করেছে অস্বস্তিকর পরিবেশ! সকাল থেকে শুনতে পাচ্ছি স্থানীয় টমটম বা ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা চালাতে দিচ্ছে না সেনা ও পুলিশ টহল দল। সকাল নয়টার দিকে যখন দীঘিনালা উপজেলা মাঠে বিভিন্ন জায়গা থেকে লংমার্চে অংশ নিতে জনগণ আসতে চেষ্টা ... বিস্তারিত পড়ুন →

প্যাঁচ নিয়ে বাসু চাকমা’র বয়ান

আমার স্বজাতীয় ভ্রাতা এবং ভগ্নিগনের নিকট প্রশ্ন রহিল,উত্তরাধীকার সূত্রে পাওয়া সরলতা কোথায় গুপ্ত করিব? আমি কিঞ্চিত হতাশ হইয়া পরিয়াছি এই ভেবে যে এতকাল জিলাপির দেশে থাকিয়া উচ্চ বিদ্যার অর্ধ পাঠ চুকাইয়া এখনো জিলাপির প্যাঁচ শিখিতে সমর্থ হয়নাই! জিলাপির দেশে সাত ঘাটের পানি খাইয়া এখন বরজোর প্যাঁচহীন বিনি ভাতের এগ নুডলস্ তৈরি করিতে পারি। বিনি ভাতের বলিলাম এই কারনে যে ইহা এতই আঠালো যে ইন্দ্রিয় সচেতন থাকিলে ইহা নুডলস্ হইলেও অবচেতন হইবা মাত্র ইহা দলা পাকাইয়া একখানা সান্নে পিদের আকার ধারনকরে, ইহা হতে জিলাপি তৈরির লক্ষ্যে মন স্থির করত পুর্বক চাপ প্রয়োগ করিবা মাত্র ইয়া বড় একখানা ... বিস্তারিত পড়ুন →

কমলছড়িতে ডাব্বো খেলা নিয়ে পুলিশের সাথে সংঘর্ষ হয়েছে শুনলাম

খাগড়াছড়ি জেলা সদরের কমলছড়িতে ডাব্বো খেলাকে কেন্দ্র করে পুলিশের সাথে ডাব্বো থেলোয়াড়দের সংঘর্ষ হয়েছে বলে শুনলাম। অাজ ১৩ মার্চ, ২০১৫ ইং রাত নয়টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। কমলছড়িতে অাজ শতবর্ষপূর্তি সম্মীলনী নামে একটি অনুষ্ঠানের অায়োজন করা হয়। এই অনুষ্ঠানে খাগড়াছড়ির এমপি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপরা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা। উক্ত অনুষ্ঠান উপলক্ষে একদল সুযোগসন্ধানী ব্যক্তি ডাব্বো বা জুয়া খেলার অাসর বসানোর অায়োজন করে। এতে প্রতি ডাব্বো গুটি থেকে একটি অাঞ্চলিক সংগঠনের কয়েকজন ১৫ হাজার টাকা করে চাঁদা ধার্য করে বলে জানা যায়। বিনিময়ে তারা পুলিশকে সামাল দেবে বলে ... বিস্তারিত পড়ুন →