শফিকুল ইসলামের জীবন ও সাহিত্য কর্ম

কবি শফিকুল  ইসলাম উদভ্রান্ত যুগের শুদ্ধতম কবি শফিকুল ইসলাম। তারুণ্য ও দ্রোহের প্রতীক । তার কাব্যচর্চ্চার বিষয়বস্তু প্রেম ও দ্রোহ। কবিতা রচনার পাশাপাশি তিনি অনেক গান ও রচনা করেছেন। তার দেশাত্ববোধক ও সমাজ-সচেতন গানে বৈষম্য ও শোষণের বিরুদ্ধে দেশবাসীকে জাগিয়ে তোলার প্রচেষ্টা লক্ষ্য করা যায়। তিনি বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনের তালিকাভুক্ত গীতিকার। শফিকুল ইসলামের জন্ম ১০ই ফেব্রুয়ারী, সিলেট জেলা শহরের শেখঘাটস্থ খুলিয়াপাড়ায়। তার পিতার নাম মনতাজ আলী। তিনি পেশায় একজন কাষ্টমস অফিসার ছিলেন। তার মাতার নাম শামসুন নাহার। শফিকুল ইসলাম সিলেট জেলার এইডেড হাইস্কুল থেকে এসএসসি ... বিস্তারিত পড়ুন →

জীবনানন্দ দাশের ‘বনলতা সেন’একটি শ্রেষ্ঠ সমকামী কবিতা !!!

কবি জীবনানন্দ দাশ ও তার ‘বনলতা সেন’ কবিতা বাংলা সাহিত্যে একটি বহুল আলোচিত বিষয় । তার কাব্যে কারণে-অকারণে তরু-গুল্ম-লতা-পাতা ঝোপঝাড়ের এত বর্ণনা পাওয়া যায় যে তাকে কবি না বলে একজন অকৃত্রিম বনসংরক্ষক বা ফরেষ্ট গার্ড বলে ভ্রম হতে পারে। বাংলাভাষার কোন কবির সম্ভবত এত গাছপালার নাম-ধাম জানা নেই। কবি তারই অকৃত্রিম পুরুষ বন্ধু বনলতা সেন বাবুকে নিয়ে রচিত ‘বনলতা সেন’ বাংলা সাহিত্যে একটি শ্রেষ্ঠ সমকামী কবিতা !! বহুল আলোচিত কবিতা বলেই এর ব্যাপক বিচার-বিশ্লেষণ প্রয়োজন। দীর্ঘদিন থেকে কবিতাটি একইভাবে পাঠ করা হচ্ছে। বেশীরভাগ পাঠক কবিতাটি সম্পর্কে পূর্ব-ধারণা নিয়ে কবিতাটি পাঠ করছেন। ... বিস্তারিত পড়ুন →

সুলতা, শুধু তোমার জন্য (বইটির ডাউনলোড লিঙ্ক ডানে)

Download Book Read the book Live   জীবনের নিঃসঙ্গ বন্ধুর পথ চলতে চলতে আকস্মিক তার সাথে দেখা। অজানা, অচেনা তবু যেন কত পরিচিত, যুগ জন্মান্তরের চেনা। ভাবি এই বুঝি আমার ঠিকানা, এখানেই বুঝি পথচলা শেষ। এখানেই বুঝি ভালবাসার ছায়ায় বিশ্রাম অবিরাম বিশ্রাম। কিন্তু সব ভাবনা কি সত্যি হয়, একদিন কাছে এসে ও কাছের মানুষ হারিয়ে যায়। আবার এই আমি সেই আমি হয়ে যাই। অসহায়,নিঃসঙ্গ,বিপন্ন। লক্ষ্যবিহীন শুরু হয় আবার পথচলা। যে যায় সেকি ফিরে আসে। আসে না। আসবে না একম ও তো বলা যায় না। আসতে ও তো পারে। এটি যুক্তির কথা। বাস্তবতা এই– তার সন্ধান আর মেলেনি। ফিরে আসবে একথা ভেবে কল্পনায় সুখ পাওয়া ও যেতে পারে। বাস্তবে নয়। তখন ... বিস্তারিত পড়ুন →

শ্রেষ্ঠ প্রতিবাদী কবিতা (বইটির ডাউনলোড লিঙ্কসহ)

Download Book Read the book Live কবি শফিকুল ইসলাম বিপ্লবী কবি। তার কাব্যের বিষয়বস্তু’ হচ্ছে সাম্যবাদী চেতনা। তার লক্ষ্য শোষণ বঞ্চনা নিপীড়ন নির্যাতনে নিষ্পেষিত মানুষের মুক্তি অণ্বেষা। তার দুটি প্রতিবাদী কাব্যগ্রন্থ ‘দহন কালের কাব্য’ ও ‘প্রত্যয়ী যাত্রা’ কাব্যগ্রন্থসহ বিভিন্ন পত্রপত্রিকা ও সংকলনে প্রকাশিত কবিতা নিয়ে ‘কবি শফিকুল ইসলামের শ্রেষ্ঠ প্রতিবাদী কবিতা’ নামে কাব্যগ্রন্থটি প্রকাশিত হল। আজকে সীমাহীন শোষণ নির্যাতন নির্লজ্জ ও নির্দয়ভাবে তার মুখোশ উন্মোচন করে  প্রকাশ্যে অবাধে উদ্ধতভাবে তার  কালো থাবা বিস্তার করেছে। প্রতিবাদ,বিবেকের আহ্বান,নৈতিক চেতনার বাণী কিছুরই ধার ... বিস্তারিত পড়ুন →

কবি, সুলতা এবং…

–রুদ্র মোহাম্মদ ইদ্রিস ।। যখন সপ্তর্ষিমন্ডলের দিকে তাকাই মনে হয় সেখানেও তুমি – সগর্বে হাটছ সুলতার হাত ধরে দ্রাঘিমার আরো উপরে- যে হাত ছুঁয়েছে সুলতার মুখ – গ্রীবা সে হাত স্পর্শ করেছে হিমাদ্রী। দিনে দিনে তোমার র্কীতিস্তম্ভ জমে উঠেছে অন্তহীন বিস্ময় নিয়ে জ্যোতিষ্কের কক্ষপথে – তুমি অমর পথের যাত্রী। এক সবুজ আঁচল রমণী হাটে কবিতার পাতায় পাতায় টর্চ হাতে – কষ্টের রাতে… হে কবি তুমি আর সুলতা যখন বসো পাশাপাশি মুখোমুখি অবাক তাকিয়ে রয় একপাশে হিমাদ্রী – অন্যপাশে সপ্তর্ষি ।। visit:   http://www.prothom-aloblog.com/blog/sfk808 বিস্তারিত পড়ুন →

নক্ষত্র মানব

রুদ্র মোহাম্মদ ইদ্রিস (শ্রদ্ধেয় স্যার কবি শফিকুল ইসলামকে নিবেদিত) একটি নক্ষত্র অস্তমিত হলে আমরা তার প্রস্থান পানে চেয়ে রইলাম দীর্ঘ সময় আরো কিছু আলোক রশ্মির প্রয়োজন ছিল। একটি সাদা বক নিজস্ব ভাষায় ডেকে নিয়ে স্বজাতিদের ফিরে গেলো নীড়ে। আমরা যারা নক্ষত্রের অনুজ অর্ধমৃত অন্তরাত্মা পুড়ে ইটভাটার ভেতর ভেতর যেমন ঘুরপাক খায় অগ্নিরাশি। আমাদের আহত শরীরে ক্ষতের প্রলেপ দিতে কিছু কৃষ্ণ হাত এগিয়ে আসে সম্মিলিত আলোর বর্ণচ্ছটায় ওদের অস্তিত্ব ক্রমশ বিলুপ্ত হয়ে যায় বাতাসে। হাসতে হাসতেই আমরা বলি হে নক্ষত্র মানব – আপনি ভালো থাকবেন, অন্তত কাকদের কর্কশধ্বনি আর শুনতে হবে না আপনাকে ।। visit:  ... বিস্তারিত পড়ুন →

ত্রয়ী গীতিকবিতা ।। শফিকুল ইসলাম

গীতিকবিতা-(০১) সেদিনের সেই তুমি কত বদলে গেছ আমার পৃথিবী আজও তেমনি আছে, যেমন দেখেছ॥ কোথায় সেই সুর, সেই গান প্রাণে প্রাণে এত মান অভিমান, মনে হয় যেন তুমি আজ সবই ভুলে গেছ॥ সেইসব দিন আজও আমায় আকুল করে ডাকে, যেতে যেতে পথে এখনও আমি দাড়াই থমকে॥ আজ ও আমি যে গানে গানে স্মরণ করি দিনগুলি মনে মনে, জানিনা তুমি আজ কোন পথে চলেছ॥ গীতিকবিতা-(০২) ভুলে আছি ভাল আছি, সেদিনের কথা আর তুলো না, দূরে আছি, বেশ আছি আমায় কাছে ডেকনা॥ রাতের স্বপ্ন প্রভাতে জাগরণে তুমি আর জাগায়ো না মিছে স্মরণে, নতুন করে আমি আর দুঃখ পেতে চাইনা॥ স্বপন দেখতে ভাল লাগেনা এখন স্বপন দেখলে বাড়ে জ্বালা অকারণ, মিলনের সুখ তো আমার কখনো প্রাণে ... বিস্তারিত পড়ুন →

A MASTER PIECE OF POETRY

“Tobu O Bristi Asuq” (Let There Be Rain) (A MASTER PIECE OF POETRY) Reviewed By Prof. A.Noor “Tobu O Bristi Asuq” (Let There Be Rain) is a collection of 41 poems of variegated tastes and flavor mostly of personal trend and characteristics by Shafiqul Islam a young poet of great erudition bestowed with an attractive poetic vein . Besides the poem which bears the title of the collection in the mid portion of it ‘Bohu din por Aaz’(Today after a long time) there is a poem ‘Akjon Beer Joddha’(A heroic fighter ).Two addressed to the mother two addressed to the dead father .One addressed to one ”D” one addressed to life and the rest are addressed to one Sulota with whom the speaker had a deep either secret or open correspondence /love but that Sulota is not within his reach though she does not seem to have married/loved another man but it is clear from the description of the speaker that she has left the speaker treading the fair love and intimacy of the speaker . It seems to me that the poet wanted to compose a book absolutely on love the mental anguish of separation or desertion. But he has an intellectual negation to be identified in that condition and so he has inserted few poems of different types in the collection just to bedim that factual truth .How ever the poet has every right to do it.In the poem ‘Bohu din por Aaz’ , the poet addresses the rain after a long time as blessing as a symbol of life and freshness. The proposed rain may tend a new life ... বিস্তারিত পড়ুন →

‘দৃষ্টির সীমানায় কবি স্যার শফিকুল ইসলাম’

‘উদভ্রান্ত যুগের শুদ্ধতম কবি শফিকুল ইসলাম’ –নিজাম ইসলাম। তারুণ্য ও দ্রোহের প্রতীক কবি শফিকুল ইসলাম। তার কাব্যচর্চার বিষয়বস্তু প্রেম ও দ্রোহ। কবিতা রচনার পাশাপাশি তিনি অনেক গান ও রচনা করেছেন। তিনি বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনের তালিকাভুক্ত গীতিকার। তিনি ১০-ই ফেব্রুয়ারী সিলেট জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। ঢাকার প্রাক্তন মেট্রোপলিটান ম্যাজিষ্ট্রেট ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাবেক এডিসি কবি শফিকুল ইসলাম বর্তমানে বাংলাদেশ সরকারের উপসচিব। প্রশাসনের ব্যস্ততম ও দায়িত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত থেকে ও তার এই নিরন্তর কাব্য সাধনা আমাদের যুগপৎ অনুপ্রাণিত ও বিস্মিত করে। কবি শফিকুল ইসলাম ... বিস্তারিত পড়ুন →

“অন্ধকারের বনলতা সেন ও আলোকিত সুলতা”

“অন্ধকারের বনলতা সেন ও আলোকিত সুলতা” –ডঃ সৈয়দ এস আর কাশফি বাংলা সাহিত্যে কবি জীবননান্দ দাশের কাব্যনায়িকা বনলতা সেন। তাকে নিয়ে অতীতে অনেক মাতামাতি হলে ও বিষয়টি এখন থিতিয়ে পড়েছে। প্রাচীন যুগের আবহে যে বনলতাকে তিনি উপস্থাপন করেছেন সে পরিবেশ আজ আর নেই। আজ আর কেউ অন্ধকারে দয়িতার সাথে সাক্ষাৎ করতে যায় না। প্রেম আজ আর কোন গোপনীয়তার ধার ধারে না। তরুণ-তরুণীর প্রেম আজ প্রকাশ্য দিবালোকে প্রতিষ্ঠিত। এ জন্য সন্ধ্যার অন্ধকারের অপেক্ষা করতে হয় না। তাই আজ আধুনিক যুগের কাব্য নায়িকা সুলতার জয়জয়কার সর্বত্র। কবি শফিকুল ইসলামের “তবুও বৃষ্টি আসুক” অনন্য সুন্দর কাব্যগ্রন্থে ‘সুলতা ... বিস্তারিত পড়ুন →