রাজনীতির চিদে মরে জুগঅ ধক কামাড়েই থাই!

রাজনীতির চিদে মরে জুগঅ ধক কামাড়ে থাই! রাজনীতির চিদে, হিলঅর চিদে মরে জুগঅ ধক কামাড়েই থাই! চিদে গুরিবার ন চ্যালেও চিদেআনি সুমি থাই, চিদঅত ফুদে দি জাই! কধা এলঅ একবজর সঙ এজেত্তে নভেম্বর,২০১৫ সঙ ফেসবুকঅত রাজনীতির লেঘালেঘি ন গুরিম! হালিক এগ্গান মন্তব্য হুব গুরিবার পরানে কঅর! সিআন অহলঅদে- আমা রাজনীতির ঘরআনঅত ভ্যান্টিলেটর বা ভাব জেবার নল/কানা/ফাইপ নেই! নেই কিনে বানা পজা বাচ বাইর অহয়, বিশেচগুরি ফেসবুকঅত! বেগঅর মনঅত থেবঅ, হাগারাসুরিত বেচ হিজুদিন আগে টয়লেট-অ গাদ-অত পুরিনেই পোল্লেম ৩ জন, তারপরে ২ জন গুরি মোট ৫ জন মানুচ মুজ্জোন। কেউ কি তোলেই চিওন এঞ্জান ঘদনা হিত্তেই উইয়ে? টয়লেট-অ গাত বানাদেও ... বিস্তারিত পড়ুন →

লিখে রেখো সাজেক একফোঁটা দিলেম শিশির!

সাজেক বা গঙ্গারাম এলাকা থেকে চলে এসেছি তিন মাসের অধিক হয়ে গেল। সেখানে থাকার সময় যে কাজটি করে সবচেয়ে বেশি মানসিক শান্তি পেয়েছি তা হলো, গঙ্গারাম-কাজালঙ নদীতে ১২ হাজারের মতো বিভিন্ন জাতের মাছের পোনা ছেড়ে দেয়ার কাজটি করে। ইউপিডিএফ সাজেক ইউনিটের পক্ষ থেকে মাছের পোনা ছেড়ে দেয়ার কাজটি করা হয়। দেখুন cht24.com লিঙ্ক মাছের ছোট্টো ছোট্টো পোনাগুলো যখন মুক্তি পেয়ে হঠাৎ ছোট্টো নদীর স্রোতের মধ্যে উধাও হয়ে হারিয়ে গিয়েছিল, তখন মনের যে স্বস্তি ও শান্তি লাভ করেছিলাম তা আজও আমাকে তৃপ্ত করে, স্বস্তি দেয়, আমি আনন্দলাভ করি, পুলকবোধ করি! না, কোনো রকমের ধর্মীয় বোধ থেকে এইপুলকলাভ, শান্তি বা স্বস্তি ... বিস্তারিত পড়ুন →

দুই পার্বত্য জেলা থেকে বান্দরবান একটু অন্যরকম- Jidit Chakma

লেখার বিষয়বস্তু গুরুত্বপূর্ণ বিবেচিত হওয়ায় Jidit Chakma-র ফেসবুক স্ট্যাটাস থেকে নিচের লেখাটি নেয়া হলো- আপনার কখনো বান্দরবান যাওয়া হয়েছে কিনা জানি না, কিংবা যাওয়া হলেও লক্ষ্য করেছেন কিনা তাও জানি না, অন্য দুই পার্বত্য জেলা থেকে বান্দরবান একটু অন্যরকম। পাহাড়-নদী-ঝর্ণা আর সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যতা এখানকার প্রধান বৈশিষ্ট্য কিংবা সামরিক পর্যটনের ভাষায় বললে বলা যায় “প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আর সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক অপূর্ব লীলাভূমি”। হ্যাঁ! যে কেউ এক দেখায় একমত পোষণ করবেন, বান্দরবান সুন্দর! আর সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি! বান্দরবানের পথে পথে সাইনবোর্ড দিয়ে টাঙানো রয়েছে সেই সম্প্রীতির ... বিস্তারিত পড়ুন →

বিজ্ঞপ্তিঃ চাঙমা ভাষার ত্রৈমাসিক ট্যাবলয়েড বোম্বা

চাকমা ভাষায় প্রথম ট্যাবলয়েড সাহিত্য কাগজ ‪#‎বোম্বা‬। এটি একটি ত্রৈমাসিক সাহিত্য কাগজ। আমাদের প্রথম সংখ্যা ইতিমধ্য অনেকেই হাতে পেয়েছেন। আমাদের ২য় সংখ্যার কাজ চলমান। আগামী জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহে আরো নতুন আঙ্গিকে বোম্বা’কে আপনাদের হাতে তুলে দিতে পারব বলে আশা রাখছি। বোম্বা’কে রাঙ্গামাটি এবং খাগড়াছড়ির প্রতিটি উপজেলায় ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য প্রতিটি উপজেলা থেকে আমাদের সহায়তা প্রয়োজন। তাই বিভিন্ন উপজেলায় অবস্থিত কলেজের কোন শিক্ষার্থী যদি আমাদের সাথে যুক্ত হয়ে সেচ্ছা সেবক হিসেবে কাজ করতে চান তবে আমাদের ইনবক্স করুন অথবা কমেন্ট করুন। উল্লেখ্য আমরা ইতিমধ্য দিঘিনালা ... বিস্তারিত পড়ুন →

বিদ্যুত বিড়ম্বনা,পরিকল্পনাহীন বিদ্যুতায়ন ও রাজধানি কেন্দ্রীক চিন্তা-পরিকল্পনা

বিদ্যুত তথা সোজা কথায় কারেন্ট এখন আধুনিক সমাজ জীবনের অপরিহার্য একটি উপাদান। বিদ্যুত না থাকলে নাগরিক জীবনে বর্ণনাতীতভাবে দুর্ভোগের শিকার হতে হয় এটা সবার জানা। খাগড়াছড়ির জেলা শহরের মতো মফস্বল শহরে বেশ কয়েকমাস হলো বিদ্যুতে বিভ্রাট চরমে পৌঁছেছে। আর বিদ্যুত বিভ্রাটকে যেন খাগড়াছড়িবাসী স্বাভাবিকভাবেই গ্রহণ করেছেন! বেশ কয়েকদিন হলো দিনের দুই তিন ঘন্টা বাদে বাকি সারাদিন এবং রাত শহরে বিদ্যুত থাকে না। কিন্তু এ নিয়ে শহরবাসীর গা সওয়া হওয়ায় কোনো বাদ প্রতিবাদ যেন নেই। সামান্য দুয়েকটা ফেবু স্ট্যাটাস ব্যতীত এ বিষয়ে উচ্চবাচ্য করতেও দেখা মেলা ভার। কেন এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে ... বিস্তারিত পড়ুন →

বিদ্যুত বিড়ম্বনা ও সরকার-মিডিয়ার রাজধানী কেন্দ্রীক চিন্তা পরিকল্পনা

বিদ্যুত তথা সোজা কথায় কারেন্ট এখন আধুনিক সমাজ জীবনের অপরিহার্য একটি উপাদান। বিদ্যুত না থাকলে নাগরিক জীবনে বর্ণনাতীতভাবে দুর্ভোগের শিকার হতে হয় এটা সবার জানা। খাগড়াছড়ির জেলা শহরের মতো মফস্বল শহরে বেশ কয়েকমাস হলো বিদ্যুতে বিভ্রাট চরমে পৌঁছেছে। আর বিদ্যুত বিভ্রাটকে যেন খাগড়াছড়িবাসী স্বাভাবিকভাবেই গ্রহণ করেছেন! বেশ কয়েকদিন হলো দিনের দুই তিন ঘন্টা বাদে বাকি সারাদিন এবং রাত শহরে বিদ্যুত থাকে না। কিন্তু এ নিয়ে শহরবাসীর গা সওয়া হওয়ায় কোনো বাদ প্রতিবাদ যেন নেই। সামান্য দুয়েকটা ফেবু স্ট্যাটাস ব্যতীত এ বিষয়ে উচ্চবাচ্য করতেও দেখা মেলা ভার। কেন এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে ... বিস্তারিত পড়ুন →

বোগাস পার্টি বোগাস সংগ্রাম- উৎপল খীসা

একথা আর অবিদিত নয় যে, পাহাড়ের রাজনৈতিক দলগুলো ঘোলাজলে হাবুডুবু খাচ্ছে সে এক যুগেরও অধিক সময় ধরে। রাজনৈতিক নেতারা দেখছেন না যথার্থ মুক্তির পথ, আলো। তাই তারা ক্ষমতাহীন, জনগণ ক্ষমতাহীন। পাহাড়ের সামাজিক, অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক সমুদয় ক্ষমতা ভোগ, ব্যবহার করছে দুবৃত্তরা। অন্যরা আজ তাদের হাতের পুতুল মাত্র! রাজনৈতিক নেতা যখন শক্তিশালী হন তখন তিনি চতুর্পাশের সমস্ত আধারকে বিদুরিত করেন সহযোদ্ধাদের সাথে নিয়ে। আর নেতা যদি বিপরীত অবস্থানে থাকেন তো ধীরে ধীরে সমস্ত আলোকে গ্রাস করে ফেলে আধার। অন্ধকারে নিমজ্জিত হয়ে যায় সমুদয় আলো। যে অবস্থায় স্বাভাবিক জীবন হয়ে পড়ে রুদ্ধ। একটি রাজনৈতিক ... বিস্তারিত পড়ুন →

এগ্গো মানজে তা হুরোল-আন আহজেইএ

চীন দেজঅর এগ্গো পজ্জন। ভালকদিন বজর আগঅর লেঘা। বুওএই নাঙে একজনে ২২০০ বজর আগে এ গল্পবো লিক্কে।শিক্কে ল’বার মতঅ গল্প। এগ্গো মানজে গাচ তা হুরোলআন আহজেইএ। হুরোল্ত্যআনদোআ ত্যা দারবো গাচ কাবিদঅ। তা হুরোলআন ত্যা ভালক জাগাত তোগেই চেলঅ। হালিক ন পেলঅ। কুদু ফেলেই ইচ্চে না কন্না চুর গুরি তা হুরোলআন নেজেইএ সিআন লোইনেই ত্যা চিদে গুরি চেলঅ। তা ঘরঅ কুরে এগ্গো গিরে থেদঅ। তারার এগ্গো গুরো শঅ এলঅ। আদিক্কেগুরি ত্যা তা ঘরঅ কুরে গুরো শঅবোরে দিঘিলঅ। তা মনান ভজমান সন্দেহ সন্দেহ গুজ্জে মন এলঅ। ত্যা মনে মনে সন্দেহ গুরিলঅ, তা ঘরঅ কুরে এ গুরো শ’বো-ই তা হুরোলআন চুর গুজ্জে। সিত্তুন ধুরি ত্যা ... বিস্তারিত পড়ুন →

দেখিয়া শুনিয়া খেপিয়াঃ ডাব্বোয়া-জুয়া চলবে না!

দীঘিনালায় ডাব্বোয়া-জুয়ার আসর বসানো চলবে না, চলবে না! দেখিয়া শুনিয়া খেপিয়া গিয়াছি বলেই মনেহয়! বেশ কয়েকদিন আগে খাগড়াছড়ি সদরের কমলছড়ি গ্রামে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠার শত বার্ষিকী অনুষ্ঠানের দিন জুয়া-ডাব্বোয়া খেলার আসর বসানোকে কেন্দ্র করে পুলিশ-ডাব্বোয়া খেলুড়েদের মধ্যে সংঘাতকান্ড হয়। আমরা নানা ভাবেই জানতে পারছি, সমাজের মধ্যে যুব-যুবা অংশ নানা ভাবে উচ্ছন্নে যাবার সাথে সাথে এলাকায় এলাকায় ডাব্বোয়া-জুয়ার প্রকোপ বৃদ্ধি পাচ্ছে। আজ ২৫ এপ্রিল সকালে শুনলাম খাগড়াছড়ির দীঘিনালা সদরে লটারী ড্র-এর আসর বসানোর হবে। এই আসরের নামে একটি বিকালে ডাব্বোয়া-জুয়ার আসর বসানো ... বিস্তারিত পড়ুন →

হেগা চাঙমা’র ফেসবুক স্ট্যাটাস- না হয় একটু আপোষ…

বয়স বেড়েছে, বেড়েছে খরচ। খরচের তুলনায় অর্থের যোগান একেবারেই সীমিত। প্রতি মাসে দেনার খাতায় বিশাল অংক যোগ হওয়ায় পৌনপুনিকভাবে ঘাটতি থেকেই যাচ্ছে। কোনভাবেই অতিক্রম করা যাচ্ছে না এই সংকট। এমতাবস্থায়, এ রাগী মানুষটির একটা চাকরি খুবই প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। সে এটাও খুব ভালোভাবে জেনে গেছে যে চাকরি করতে গেলে এমন রাগী স্বভাব বদলাতে হতে। তাই, বিভিন্ন সংকটের মধ্যে আপোষীপনা বাড়ছে জ্যামিতিক। আর তার ভাবনা জুড়ে আছে অন্য এক জগত, যে জগতের নাম আত্মমর্যাদার লড়াই, স্বাধীনভাবে টিকে থাকার যুদ্ধ। বুঝতে পারছি, আমার ভাবনার জগতকে দারুন প্রভাবিত করছে বাস্তবতা। মনন জগতে বিচিত্রসব দ্বন্দ্ব খেলা ... বিস্তারিত পড়ুন →