’ভিন্নখাতে প্রবাহিত’ ও আপন অন্তর্জালীয় মতামত

তিন তারিখের ফেব্রুয়ারি ২০১৭। খাগড়াছড়িতে প্রয়াত শ্রদ্ধেয় চন্দ্রমণি মহাস্থবিরের ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ দাহক্রিয়া অনুষ্ঠানের জন্য পূন্যার্থীদের মেলা বসেছিল মাটিরাঙ্গা ও খাগড়াছড়ির সীমান্তবর্তী চট্টগ্রাম-খাগড়ছড়ি সড়কের পাশে অবস্থিত একটি বৌদ্ধ বিহারে।  অনুষ্ঠানে সমবেত হয়েছিল আবাল-বৃদ্ধ-বণিতা হাজার হাজার জনতা। ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের সাথে উৎসবের পরিবেশও ছিল অনুষ্ঠান প্রাঙ্গনে। সাধারণভাবে বৌদ্ধ ধর্মীয় মতে কোন উপসম্পদা প্রাপ্ত ভিক্ষু স্বাভাবিকভাবে পরিণত বয়সে মারা গেলে মৃত ব্যক্তিকে নিয়ে শোক প্রকাশ না করে তার সদগতি যে লাভ হয় তার জন্য ধর্মীয় বিধানমতে শ্রাদ্ধক্রিয়াসহ ... বিস্তারিত পড়ুন →

অস্ত্রগুরু বুড়ো ওস্তাদকে স্মরণঃ তার জীবন যেন ইতিহাস বইয়ের একটি পাতা

পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণ একদা এক সুমহান স্বপ্ন পূরণের জন্য, অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে সশস্ত্র সংগ্রাম করেছিল। সশস্ত্র সংগ্রাম শুরু করা ঠিক ছিলো বা বেঠিক ছিলো তা নিয়ে নানা তাত্ত্বিক আলোচনা পর্যালোচনা হলেও হতে পারে। কিন্তু রাজনৈতিক নেতৃত্বের ডাকে যে সকল যুব-ছাত্র-পরিণত বয়সের সাধারণ অগণিত জনতা সেই সশস্ত্র সংগ্রামের অগ্রযাত্রার পথিক হয়েছিল তারা তো এক আশার জন্য, এক নতুন দিনের স্বপ্ন পূরণের জন্যই সেখানে সশস্ত্র লড়াইয়ে যোগ দিয়েছিল। নলিনী রঞ্জন চাকমাও ঠিক সেই মহান সুমহান আশা নিয়েই যোগ দিয়েছিলেন শান্তিবাহিনীতে। বাংলাদেশ সরকার এই সশস্ত্র সংগ্রামকে বিচ্ছিন্নতাবাদের আন্দোলন, ... বিস্তারিত পড়ুন →

নীতিকথা: মানুষ ও মানুষভেদে নীতি কৌশলের মধ্যে পার্থক্য

একবার এক যুবক তার দাদুকে প্রশ্ন করলো- দাদু, মানুষ ও মানুষ যে নীতি কৌশল ব্যবহার করে থাকে তার মধ্যে কি পার্থক্য রয়েছে? দাদু বললেন, নাতি, তুমি খুব সুন্দর প্রশ্ন করেছ। প্রশ্নের উত্তর দিতে পারলে আমি খুশিই হবো। কিন্তু তার আগে বলো, আমাদের সামনে দিয়ে যে ঘোড়ার গাড়িটি গেল তাতে যে ঘোড়াটি বাধা রয়েছে তা দেখেছ কী রকম বলশালী? আর গাড়িটি দেখেছ, কতো সুন্দর করে তৈরী করা হয়েছে? ঘোড়ার গাড়িটি কার তুমি কি জান? নাতি বললো, হ্যাঁ, দাদু জানি, ঘোড়ার গাড়িটি আমাদের গ্রামেরই একজন ধনী সজ্জন ভদ্রলোকের। দাদু: ও! তাহলে ঘোড়ার গাড়িটিতে যিনি বসে আছেন তিনি বোধহয় সেই ভদ্রলোকই হবেন। নাতি: না দাদু, গাড়িতে যিনি বসে আছেন ... বিস্তারিত পড়ুন →

মাও সেতুঙ-এর লেখা থেকে: আমলাতন্ত্রের ২০ ধরণের প্রকাশ বৈশিষ্ট্য বা প্রকাশ প্রকরণ

  মিঠুন চাকমা তারিখ: ০৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ চীনের কম্যুনিস্ট পার্টি বা সিপিসি তার গঠনকাল থেকে মাও সেতুঙেৃর সময় পেরিয়ে গিয়ে এখনো পর্যৃন্ত চীন দেশে পরিচালনাকালে আনুষ্ঠানিকতাবাদ, আমলাতান্ত্রিকতা ও বিলাসিতার বিরুদ্ধে সংগ্রাম করে যাচ্ছে। মাও সেতুঙ এই তিন বিষয়ে পার্টিতে ব্যাপক আলোচনা করেছেন। তিনি পার্টির মধ্যে আমলাতান্ত্রিক প্রশাসন পদ্ধতি নিয়ে বিভিন্ন লেখা লিখেছেন। তার মধ্যে ‘Combat Bureaucracy, Commandism And Violations Of The Law And Of Discipline (Selected Works of Mao TseTung;Vol. 5; Page-84-85) এবং ১৯৭০ সালে লিখিত ‘Twenty Manifestations of Bureaucracy’ অন্যতম। সাম্প্রতিককালে ২০১২ সালের ডিসেম্বরে চীনা কম্যুনিস্ট পাটির রাজনৈতিক ব্যুরো এক মিটিঙে ৮ টি শৃংখলামূলক ... বিস্তারিত পড়ুন →

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমাদের জুম্মদের অসামাজিক আচরণ!

ইন্টারনেট বা অন্তর্জাল বা ডিজিটাল মাধ্যম যেভাবেই এই বর্তমান আধুনিক তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তিকে অভিহিত করে থাকি, এটা বলা সংগত ও বাস্তবসম্মত যে, এই ইনফরমেশন টেকনোলজি আমাদের পার্বত্য চট্টগ্রামের জুম্ম জাতীয় সত্ত্বার অন্তর্ভুক্ত একটি বিশাল সংখ্যাবহুল অংশকে নানাভাবে ওতপ্রোতভাবে প্রভাবিত করেছে। এই মাধ্যমটির কল্যাণেই আজ আমরা আমাদের ক্ষীণমাত্রার চেঁচামেচি বা চিৎকার বা অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধে লড়াইকে বেশ বৃহৎ এক পরিসরে নিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছি। বিশেষভাবে বৃহত্তর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক আমাদের সেই সুযোগটি হাতের মুঠোয় এনে দিয়েছে। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখ ও বিষাদগ্রস্ততার ... বিস্তারিত পড়ুন →

রাজনীতির চিদে মরে জুগঅ ধক কামাড়েই থাই!

রাজনীতির চিদে মরে জুগঅ ধক কামাড়ে থাই! রাজনীতির চিদে, হিলঅর চিদে মরে জুগঅ ধক কামাড়েই থাই! চিদে গুরিবার ন চ্যালেও চিদেআনি সুমি থাই, চিদঅত ফুদে দি জাই! কধা এলঅ একবজর সঙ এজেত্তে নভেম্বর,২০১৫ সঙ ফেসবুকঅত রাজনীতির লেঘালেঘি ন গুরিম! হালিক এগ্গান মন্তব্য হুব গুরিবার পরানে কঅর! সিআন অহলঅদে- আমা রাজনীতির ঘরআনঅত ভ্যান্টিলেটর বা ভাব জেবার নল/কানা/ফাইপ নেই! নেই কিনে বানা পজা বাচ বাইর অহয়, বিশেচগুরি ফেসবুকঅত! বেগঅর মনঅত থেবঅ, হাগারাসুরিত বেচ হিজুদিন আগে টয়লেট-অ গাদ-অত পুরিনেই পোল্লেম ৩ জন, তারপরে ২ জন গুরি মোট ৫ জন মানুচ মুজ্জোন। কেউ কি তোলেই চিওন এঞ্জান ঘদনা হিত্তেই উইয়ে? টয়লেট-অ গাত বানাদেও ... বিস্তারিত পড়ুন →

সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর সাক্ষাতকার পড়ার পর সংক্ষিপ্ত মন্তব্য

বিডিনিউজ২৪.কম এর সাহিত্য সংক্রান্ত পাতা থেকে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর এক সাক্ষাতকার নেয়া হয়। সাক্ষাতকারটি নিয়েছেন রাজু আলাউদ্দিন। দীর্ঘ এই সাক্ষাতকারটি পড়ে আমার বিভিন্ন বিষয়ে অ্নেক ধারণা অর্জন সম্ভব হয়েছে। সাক্ষাতকারটির একটি বিষয় নিয়ে আমার একটু মতামত দেয়ার ইচ্ছে হয় এবং তা বিডিনিউজ২৪.কম এর সাহিত্য পাতার কমেন্ট অংশে লিখি। উক্ত মন্তব্যটি নিচে তুলে ধরলাম- তাঁর সাক্ষাতকারে তিনি হুমায়ুন আজাদ সম্পর্কে বলছেন, “হুমায়ুনের একটি অসাধারণ গুন ছিল, হুমায়ুন ছিল অসাধারণ পরিশ্রমী, এই রকম পরিশ্রমী খুব কম দেখেছি। আমার সাথে তার খুবই ... বিস্তারিত পড়ুন →

জ্ঞানী বুদ্ধের শিক্ষা-আচার সর্বস্ব কঠোর সাধনা নয়, নীতি নৈতিকতাপূর্ণ জীবন যাপনই প্রধান

ধ্যানী জ্ঞানী বুদ্ধ একসময় উজুন্যা বা উজুনজার কন্নকথল হরিণচারণ বনে অবস্থান করছিলেন। তাঁর সাথে দেখা করতে আসলেন নির্গন্থ তথা নগ্ন এক সন্যাসী। সন্যাসী ধ্যানী জ্ঞানী বুদ্ধকে প্রশ্ন করলেন, ভদন্ত গৌতম! আমি শুনেছি আপনি কঠোর তপস্যার নিন্দাবাদ করেন, তাদের তিরস্কার করেনম অপবাদ দেন। তাদের কথা কি ঠিক নাকি বেঠিক? জ্ঞানী বুদ্ধ সানন্দে সমালোচনা গ্রহণ করতেন তখন বুদ্ধ সমালোচনাপূর্ণ বক্তব্য সানন্দে গ্রহণ করে বললেন, এ কথাটি সত্য নয়। তিনি বললেন, প্রজ্ঞাপূর্ণ চোখে এটা দেখা যায়, কোনো কোনো কঠোর সাধনাকারী মরণের পরে দুর্গতিপ্রাপ্ত হয়েছেন। আর কোনো কোনো কঠোর সাধানাকারী তপস্বী মরণের পরে ... বিস্তারিত পড়ুন →

টক শোতে হাতাহাতি- যাহাই কার্য তাহাই কারণ তো বটেই

একুশে টিভির একুশের রাতে টক শো’তে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাটি ঘটেছে দিবাগত রাত সোমবার মানে ০৫ মে, ২০১৫। স্থানঃ কারওয়ান বাজার একুশে টিভি সম্প্রচার কেন্দ্র।হাতাহাতিতে অংশ নিয়েছেন মেজর জেনারেল(অব:) আব্দুর রশিদ (অব.) এবং অধ্যাপক ড. শহীদুজ্জামান(তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক)। হাতাহাতির ঘটনা লাইভ দেখানো হয়েছে অন্তত কিছুক্ষণের জন্য। লিংক এ অনুষ্ঠানের প্রযোজক ছিলেন মাসুদুল হাসান রনি। সঞ্চালক ছিলেন মঞ্জুরুল আলম পান্না। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে আরো ছিলেন প্রথম আলোর বিশেষ প্রতিনিধি টিপু সুলতান। সম্ভবত বাংলাদেশে জঙ্গীবাদের উত্থান ও ... বিস্তারিত পড়ুন →

জন স্টুয়ার্ট মিল

জন স্টুয়ার্ট মিল(১৮০৬-১৮৭৩) একজন দার্শনিক, রাজনীতিক এবং সর্বোপরি বলা হয়ে থাকে ঊনিশ শতকের সবচেয়ে প্রভাবশালী ইংরেজীভাষী দার্শনিক। তিনি দর্শন, জ্ঞানতত্ত্ব, অর্থনীতি, সমাজ ও রাজনীতি, নৈতিকতা, ধর্ম, নারী অধিকার ইত্যাদি বিষয়ে লেখা লিখেছেন। তার গুরুত্বপূর্ণ বইয়ের মধ্যে A System of Logic, On Liberty, and Utilitarianism উল্লেখযোগ্য। জন স্টুয়ার্ট মিলের পিতার নাম জেমস মিল(James Mill)। তিনি একজন স্কটিশ। জন বিয়ে করেন হেরিয়েট বারো(Harriet Barrow) নামে একজনকে। জেমস মিল History of British India(1818) নামে একটি বই লেখেন। তিনি ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানীতে চীফ এক্সামাইনার হিসেবে চাকুরি করেন। জেমস মিল ১৮০৮ সালের দিকে জেরেমি বেন্থামের সাথে পরিচিত হলে ... বিস্তারিত পড়ুন →